খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আইনজীবীদের প্রতীকী অনশন

11

নিজস্ব প্রতিবেদক: গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তি’র দাবিতে নারায়ণগঞ্জে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করেন বিএনপি পন্থি আইনজীবীরা। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বেলা সোয়া ১২ টায় কোর্ট প্রাঙ্গনে “গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আইনজীবী” এই ব্যানারে নারায়ণগঞ্জ শাখা’র উদ্যোগে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করা হয়।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. জাকির হোসেন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এড. তৈমূর আলম খন্দকার, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সাংসদ এড. আবুল কালাম।

এ সময় বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, বিচার ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রন করে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাগাড়ে আটক করে রাখা হয়েছে। যে দুই কোটি দশ লক্ষ টাকার আত্মসাৎ মামলায় তাকে কারাগড়ে রাখা হয়েছে, সেই টাকা ব্যাংকে জমা রাখার পর আজ ৩ কোটি টাকার মত হয়ে গেছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া একজন রাজনৈতিক নেতা তার মুক্তি রাজনৈতিক ভাবেই হবে।

প্রধান বক্তা হিসেবে এড. আবুল কালাম বলেন, আইনের বিধানে মুক্তির প্রাপ্যতা থাকার পরও রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারনে ৩ বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি হচ্ছে না। দেশের মানুষ আজ আতংকৃত কারন গণতন্ত্র দিন দিন বিলিন হয়ে যাচ্ছে। ৭৫ বছর বয়সে নেত্রী আজ অসুস্থ হয়ে কারাগাড়ে। যদি আইন তার নিজেস্ব গতিতে চলতো তাহলে নেত্রী এতো দিন মুক্তি পেয়ে যেতো। সরকার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত আইনের পরিবর্তন ও নেত্রীর মুক্তির জন্য আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই।

এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপুর সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন, এড. সামসুজ্জামান খোকা, এড. আনিছুর রহমান মোল্লা, এড. শহীদ সারোয়ার, এড. আজিজ আল মামুন, এড. বোরহান উদ্দিন সরকার, এড. আব্দুল হামিদ খান ভাষানী, এড. সুলতান আহম্মেদ, ওমর ফারুক নয়ন, এড. সম্পা, এড. শারমিন, এড. বাধন, এড. সুলতানা সহ অন্যান্য আইনজীবী বৃন্দ।

বক্তব্য শেষে এড. সম্পা উপস্থিত আইনজীবীদের পানি পান করিয়ে অনশন ভাঙ্গেন।

Comments are closed.