প্রশাসনিক বাঁধায় পন্ড হলো নারায়নগঞ্জ মহানগর বিএনপির ডাকা সমাবেশ

4

শহর প্রতিনিধি:৯ই ফেব্রুয়ারি রোজ শুক্রবার সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপির নেতা কর্মীদের মুক্তির দাবীতে সকাল ১০ ঘটিকায় প্রেস ক্লাবের সামনে এক সমাবেশের ডাক দেয় নারায়নগঞ্জ মহানগর বিএনপি।প্রশাসনিক বাঁধার কারনে পন্ড হয় বিএনপির ডাকা সমাবেশটি।সমাবেশটিতে অংশগ্রহণ করতে আসেন এ.টি.এম.কামাল,সহ-সভাপতি এড.জাকির হোসেন,সহ-সভাপতি ফকরুল ইসলাম,সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আল ইউসুফ,মহানগর বিএনপি নেতাএড. রিয়াজুল ইসলাম,এড.রফিক আহমেদ,আব্দুর সবুর খান,এড. সুমন,এড.রিয়া,মহানগর বিএনপি নেতা মোস্তাকিম শিপলু।

বিএনপির ডাকা সমাবেশে পন্ড হবার ব্যাপারে এ.টি.এম কামাল বলেন,যেখানে বামদল ও অন্যান্য সংগঠন প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ করে।আর বিএনপি হচ্ছে জনগনের দল।কিন্তু বিএনপিকে শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।আমরা শান্তিপূর্ণ ভাবে সমাবেশটি করতে চেয়েছি কিন্তু প্রশাসন আমাদের প্রেস ক্লাবের সামনে করতে দেয়নি।আমরা গলির ভিতরে কোন সমাবেশ করবো না কারন এটা আমাদের আত্নসম্মানে বাঁধে।বিএনপি কোন গলির দল নয়।প্রশাসন যদি আমাদের অনুমতি না দেয় তাহলে আমরা সমাবেশ করবো না।তবে প্রশাসনের নিকট আমাদের অনুরোধ সমাবেশ আমাদের সাংবিধানিক এবং গনতান্ত্রিক অধিকার।আজ সারা বাংলাদেশে সমাবেশ হবে এবং ডাকা প্রেসক্লাবের সামনেও হবে।প্রেসক্লাব একটি মুক্তাঙ্গন তাই আমাদের শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করতে চাই সেখানে।আমরা গনতন্ত্রের চর্চা করতে চাই।

প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এড.জাকির হোসেন বলেন,অতীতে কখনো রাজনৈতিক অনুষ্ঠান করতে হলে প্রশাসনের কোন অনুমতির প্রয়োজন হয়নি।অন্যান দল করতে গেলে অনুমতি লাগে না কিন্তু একমাত্র বিএনপি কোন অনুষ্ঠান করতে গেলে প্রশাসনের অনুমতির প্রয়োজন হয় কারন প্রশাসন বেগম খালেদা জিয়াকে ভয় পায়,তারেক জিয়াকে ভয় পায়, বিএনপিকে ভয়।তারা জানে বিএনপি যদি মাঠে নামে তাহলে আওয়ামীলীগের কোন অস্তিত্ব থাকবে না তাই তারা পুলিশ দিয়ে আমাদের কোন অনুষ্ঠান করতে গেলে বাঁধা দেয়।

Comments are closed.