“প্রবীণদের সেবা দিন, নিজের বার্ধক্যের প্রস্ত্ততি নিন” অনুষ্ঠান

3

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :সামাজিক সংগঠন সভ্যতার উদ্যোগে ‘সন্তানদের সঠিক ধর্মীয় শিক্ষা ও সৎ উপার্জনে লালন পালনই বৃদ্ধ বয়সে সুখ আর সম্মানে থাকার পাথেয়’ শীর্ষক আলোচনা সভা ৬ জুলাই ২০১৯, শনিবার জাতীয় যাদুঘর কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো: মুজিবুল হক চুন্নু, এমপি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৩৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী মো. আউয়াল হোসেন, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর তাহের আহমেদ চৌধুরি ও ভিকারুননিসা নুন স্কুল এন্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক জামান আরা বেগম। অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ ইন্সটিটিউটের অধ্যাপক ও প্রবীণ হিতৈষী সংঘের মহাসচিব ড.এ এস এম আতীকুর রহমান। সভাপতিত্ব করেন বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর মাসুদ এ খান।বাংলাদেশে পিতা-মাতার ভরণ পোষণ আইন ও বিভিন্ন ভাতা প্রদান বাস্তবায়নের  জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে  বক্তব্য রাখেন সভ্যতার চেয়ারম্যান রেজওয়ানা হোসেন সুমী এবং সুচনা বক্তব্য রাখেন সভ্যতার সিইও শাকিল হোসেন ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পিতা-মাতার প্রতি সন্তানের যে দায়িত্ব রয়েছে তা যথাযথ পালন করা প্রতিটি নাগরিকের কর্তব্য। এজন্য সন্তানদেরকে সুশিক্ষা প্রদান করতে হবে। সামাজিক অবক্ষয় থেকে প্রজন্মকে রক্ষা করতে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।এজন্য প্রয়োজন যথাযথ ধর্মীয় শিক্ষা প্রদান এবং পরিবার ও সমাজে তার প্রতিফলন। তবেই পরিবার ও সমাজে শিশু থেকে বৃদ্ধ সব বয়সের মানুষই নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত পাবেন। এজন্য সবাইকে ভ‚মিকা পালন করতে হবে। বক্তারা সমাজের অবহেলিত বৃদ্ধদেরকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের মাধ্যমে তাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য আহŸান জানান। অনুষ্টানে সভ্যতার সাথে উক্ত বিষয়ে  একাত্বতা ঘোষনা করে ঢাকার ছোট বড় বিভিন্ন  সামাজিক সংগঠনের বিশিষ্ট ব্যক্তিগণও বক্তব্য রাখেন।

 

Comments are closed.