বর্ষায় পা ও চুল ভালো রাখবেন যেভাবে

80

লাইফস্টাইল ডেস্ক:ভেজা মৌসুমে চুল নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। অবাধ্য চুল নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন নারিকেল তেল ও মধুর মাস্ক ব্যবহার করে। পায়ের দুর্ঘন্ধ দূর করতে পানি জমে থাকে এমন জুতা না পরার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।
‘ক্রক্স ইন্ডিয়া’র বিপণন বিভাগের প্রধান সুরভি আগারওয়াল এবং ‘নইর’য়ের পরিচালক সময় দত্ত নিচের কিছু কৌশল অনুসরণ করার পরামর্শ দেন।

চুলের যতœ
– হেয়ার মাস্ক চুলে চমৎকার কাজ করে, বিশেষ করে এই মৌসুমে। নারিকেল তেল আর মধুর সমন্বয় একটু অদ্ভুত লাগলেও এটা চুলের পুষ্টি যোগাতে সাহায্য করে।
– বর্ষায় মাথার ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যায়। তাই চুলের প্রাকৃতিক আর্দ্রতা ধরে রাখতে চুলের আগায় কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। মনে রাখবেন কন্ডিশনার মাথার ত্বকে নয় চুলে ব্যবহার করতে হবে।
– কোমল ও উজ্জ্বল চুল পেতে চুলে ভেষজ উপাদান ব্যবহার করুন। এটা চুলে ঘনভাব আনে এবং হালকা অনুভূত হয়।
– বর্ষায় মাথার ত্বক চুলকানি হয়। খুশকি ও চুলকানি দূর করতে নিম তেল ব্যবহার করুন।
– ভেজা ও নিস্তেজ চুলে ময়লা আটকায় বেশি। তাই সব সময় চুল শুকনো রাখার চেষ্টা করুন, এমনকি বৃষ্টিতে ভেজার পরও ।
পায়ের যতœ
পায়ের শুষ্কতা ও ফাঁটা দূর করতে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। মডেল: এলমা। পায়ের শুষ্কতা ও ফাঁটা দূর করতে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। মডেল: এলমা।
– পায়ের শুষ্কতা ও ফাঁটা দূর করতে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।
– জুতা নষ্ট হওয়া এড়াতে পানিতে ভেজানো থেকে দূরে থাকুন। যে কোনভাবে নষ্ট হওয়া এড়াতে জুতার ভেতরের শুকতলি যেন শুকনো থাকে সেদিকে খেয়াল রাখুন। জুতায় চকচকেভাব ধরে রাখতে বাইরের অংশ মুছে পরিষ্কারে রাখুন।
– জুতার বাইরের অংশ পলিশ ও ওয়াক্স করা কেবল উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনে না বরং আর্দ্রতা থেকেও রক্ষা করে।
– পায়ে বাতাস চলাচলের জন্য ও পানি যেন আটকে না থাকে সেজন্য খোলামেলা ধরনের জুতা বা চটি ব্যবহার করুন।
– এই সময়ে রাস্তার কাদা-মাটি থেকে জুতা রক্ষা করতে ধোয়া যায় এমন প্লাস্টিকের জুতা ব্যবহার করা সবচেয়ে ভালো। উজ্জ্বল ফ্লিপ-ফ্লপস বা চটিস্যান্ডেল, ফ্লোটারস, ¯িøপ-অন বা ¯øাইডার ধরনে জুতা বেছে নিতে পারেন।
– কোনো কারণে জুতা ভিজে গেলে তা সময় নিয়ে শুকান। এতে জুতায় দুর্গন্ধ হবে না এবং কাদা-মাটি থেকেও সুরক্ষিত থাকবে।

Comments are closed.