মাসুদ রানা ছবিতে এবিএম সুমন-জন ও পিয়া জান্নাতুল

6

ডেস্ক নিউজ:
জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘মাসুদ রানা’ ছবি নিয়ে বেশ অনেকদিন ধরেই চলছে আলোচনা। এই ছবিতে কারা অভিনয় করবেন তা নিয়ে চলছে নানা সংশয়। ছবিতে বলিউডের অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুর অভিনয় করবেন বলে এর আগে ঘোষণা দিলেও পড়ে জানা যায় তিনি থাকছেন না। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সূত্রে উঠে এসেছে মাসুদ রানা চরিত্রে অভিনয় করবেন বাংলাদেশের অভিনেতা এবিএম সুমন।

ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায় যে, এই ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের চারজন শিল্পী। এরমধ্যে রয়েছেন এবিএম সুমন, সাঞ্জু জন ও মডেল-অভিনেত্রী পিয়া জান্নাতুল। এরইমধ্যে তারা তিনজন ছবির জন্য কমব্যাট ফাইটিং এর উপর প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন বলে জানা যায়।

এদিকে আজ জাজ মাল্টিমিডিয়া এক পোস্টে লিখেন, ‘মাসুদ রানা সিরিজের বইগুলোতে আমরা রানা ছাড়াও বিসিআই-এর অন্যান্য অনেক এজেন্টের দেখা পাই। যেমন- সোহেল, সলীল, জাহেদ, রাশেদ। অনেক নারী চরিত্রেরও নিয়মিত দেখা মেলে- সোহানা, রুপা, ইলোরা। এদের মধ্যে ইলোরা হচ্ছে বিসিআই চিফ মেজর জেনারেল রাহাত খানের সেক্রেটারি, বাকিরা সিক্রেট স্পাই।

মাসুদ রানা সিরিজে সোহেল খুবই গুরুত্বপূর্ন চরিত্র, রানার সবচেয়ে কাছের বন্ধু। মাসুদ রানাকে নিয়ে নির্মিতব্য আমাদের প্রথম সিনেমাটিতে আমরা সোহেল এবং রাশেদকে এনেছি। এর পাশাপাশি থাকছে ক্যাপ্টেন রুপা, যে রানার মতই ফাইটিং ও অস্ত্র চালনায় পারদর্শী। এছাড়াও থাকছে ক্যাপ্টেন নবনিতা- বিসিআই-এর একজন আইটি এক্সপার্ট ।

মাসুদ রানার প্রথম সিনেমায় এই ৪ জনকে আমরা রানার সহযোগী এজেন্ট হিসাবে পাবো। ৪টি চরিত্রেই অভিনয় করছেন বাংলাদেশের শিল্পীরা। রুপা ও নবনিতা চরিত্রের অভিনেত্রী দুইজনকে কাস্ট করার সময় তাদের অভিনয় দক্ষতা, ইংরেজি উচ্চারণ, দৈহিক গড়ন (একজনের উচ্চতা ৫’৯”, অন্য জন ৫’১০”) সহ সব দিক আমরা বিবেচনায় নিয়েছি। বর্তমানে তারা দুজনেই কমব্যাট ফাইটিং এর উপর প্রশিক্ষণ নিচ্ছে। এই ধরনের ট্রেনিং সাধারণত আর্মির কমান্ডোদের দেয়া হয়।’

মাসুদ রানা ছবিতে অভিনয়ের জন্য স্পাইদের কমব্যাট ফাইট জানা জরুরী। এদিকে জানা যায় এবিএম সুমন, সাঞ্জু জন ও পিয়া জান্নাতুল তিনজনেই খশরু পারভেজ রুনীর কাছে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। রুনী তার ফেসবুকে এই তিনজনের ফাইটিং শেখার কিছু ভিডিও অংশ প্রকাশ করেন। সেখানে দেখা যায় এই তিনজনই কমব্যাট ফাইট প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।

ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায়, তারা তিনজনই চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। মাসুদ রানা চরিত্রে এবিএম সুমন, সোহেল চরিত্রে সাঞ্জু জন এবং ক্যাপ্টেন রুপার চরিত্রে পিয়া জান্নাতুলকে দেখা যেতে পারে বলে।

এই বিষয়ে জানতে পিয়া জান্নাতুলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এই বিষয়ে আমি এখনও কিছু বলতে পারছি না। যতক্ষণ পর্যন্ত সাইনিং না হবে কিছু বলা যাচ্ছে না। ভিডিও প্রসঙ্গে তিনি বলেন, (হাহাহা) আমি তো অনেক কিছুই করি। জিম করি নিয়মিত, জিমের পাশাপাশি ফাইটও করি।

অন্যদিকে সাঞ্জু জন বলেন, ট্রেনিং করছি সেটা ঠিক আছে। কিন্তু ছবির বিষয়ে এখনই কিছু বলতে পারছি না। এই বিষয়ে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ঘোষণা দিয়ে জানাবেন।

মাসুদ রানার শুটিং হবে মরিশাস, থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে। সিনেমার বাজেট করা হয়েছে প্রায় ১০ মিলিয়ন ডলার বা প্রায় ৮৩ কোটি টাকা। জাজের সঙ্গে ছবিটির সহপ্রযোজক হিসেবে আছে হলিউডের সিলভার লাইন। এমনটাই জানা যায় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির সূত্রে।

হলিউড, ঢালিউড, টালিউড সহ আরও বিভিন্ন মুভি ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা-অভিনেত্রীরা অভিনয় করতে চলেছেন ছবিটিতে। এতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন রেসলিং দুনিয়ার ভয়ংকর তারকা দ্য গ্রেট খালি। আরও থাকছেন ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ ছবির খলনায়ক ড্যানিয়েল বার্নহার্ড। এছাড়াও আছেন ‘আয়রন ম্যান ২’খ্যাত হলিউডের জাঁদরেল অভিনেতা মিকি রোর্ক, গ্যাব্রিয়েল্লা রাইট, মাইকেল প্যারেসহ বেশ ক’জন তারকা।

কাজী আনোয়ার হোসেনের লেখা ‘বাংলার জেমস বন্ড’খ্যাত সেই গোয়েন্দা গল্প নিয়ে গত বছর সিনেমার নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলো প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হলিউডের ডিরেক্টর আসিফ আকবর। ‘মাসুদ রানা’ সিরিজের প্রথম পর্ব ‘ধ্বংস পাহাড়’ নিয়ে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হচ্ছে। এর ইংরেজি নাম ‘এমআর-৯’ আর বাংলা নাম হবে ‘মাসুদ রানা’। ছবিটি ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় আসবে। পরে অন্য ভাষায় ডাবিং বা সাবটাইটেল হবে।

Comments are closed.