ইসলামপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষ: আহত ১০

9

ইসলামপুর প্রতিনিধিঃইসলামপুরের ডেবরাইপেচ গ্রামের নিরীহ কৃষক ছোরাপ খানের ভোগদখলীয় পৈর্তৃক সম্পত্তি জবর দখল প্রক্রিয়ায় একই গ্রামের প্রভাবশালী ফকির আলী গংদের সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী হামলা চলাকালে উভয় পক্ষের অন্তত: ১০ ব্যক্তি আহত হয়েছে।

ইসলামপুরের চিনাডুলি ইউনিয়নের ডেবরাইপেচ গ্রামের প্রভাবশালী ফকির আলী গংদের সাথে একই গ্রামের কৃষক ছোরাপ খানের দীর্ঘদিন যাবত জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে ফকির আলী গংরা গত ২২ সেপ্টেম্বর দুপুরে একটি মেশিনের হাল দিয়ে ছোরাপ খানের জমিতে জোরপূর্বক চাষ শুরু করে।

এসময় ছোরাপ খানসহ তার পরিবারের সদস্যরা অন্যায়ের প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রভাবশালী ফকির আলী গংরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ছোরাপ খানসহ তার পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালায়। ওই হামলায় রফিকুল ইসলাম, ঝরু খান, সখিনা বেগম, আলেমা বেগম ও সাবু খানসহ অন্তত: ৬ জন আহত হয়েছেন। তন্মধ্যে গুরুতর আহত রফিকুল ইসলাম,ঝরু খান ও সখিনা বেগমকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে ছোরাপ খান বাদী হয়ে ইসলামপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। অপরদিকে ওই সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের আঘাতে ফকির আলী ও নবির উদ্দিনসহ আরো চারজন আহত হয়েছেন।

ইসলাপুরের চিনাডুলি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, ডেবরাইপেচ গ্রামের কৃষক ছোরাপ খানের সাথে তার প্রতিপক্ষ ফকির আলী ও নবির উদ্দিন গংদের বিরোধ এক বছর আগে মিটিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এবারো তাদের বিরোধ স্থানীয় ভাবে বসেই সামাজিক বিচারে মিমাংশা করা হবে।

ইসলামপুর থানার ওসি আল মামুন জানান, চিনাডুলি ইউনিয়নের ডেবরাইপেচ গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হযেছে। তাদেরকে স্থানীয়রা ইসলামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। এছাড়াও উভয় পক্ষই থানায় পৃথক মামলা দায়ের করেছেন।

Comments are closed.