ফতুল্লায় স্বামীর সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে রুজিফার আত্মহত্যা!

72

নিজস্ব সংবাদদাতা:ফতুল্লার কাশীপুর খিল মার্কেট এলাকায় স্বামীর সাথে অভিমান করে এক সন্তানের জননী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনা ঘটেছে গতকাল সকাল সাড়ে ১১টায়। এব্যাপারে অত্মহরনকারীর ফুফাতো ভাই আসাদুল বিশ্বাস বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছে।

এলাকা সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লার কাশিপুর খিল মার্কেট এলাকায় এক ছেলে সন্তান নিয়ে বসবাস করে আহম্মেদ আলী (৩৫) ও তার স্ত্রী রুজিফা বেগম(২৬) । সে কাশিপুর নেভি গামের্স্টসে চাকুরী করে আসছে। স্বামী স্ত্রীর মধ্যে সাংসারিক বিষয়দি নিয়ে তাদের মধ্যে তেমন একটা বনিবনা ছিলোনা । প্রায়ই ঝগড়া হতো বলে জানান প্রতিবেশী ভাড়াটিয়ারা। গত ২৩ জুলাই (সোমবার) সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১১ টার মধ্যে যেকোন সময় নির্জনে সংগোপনে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না জড়িয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে রুজিফা বেগম। এসময় আশে পাশের লোকজন ও তার স্বামী আহম্মেদ আলী রুজিফাকে নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এরপর স্বামী সেখানে রুজিফাকে রেখে পালিয়ে যায়। পরে কর্তব্যরত ডাক্তার রুজিফাকে মৃত্যু বলে ঘোষনা দেয়।

এ ঘটনায় নিহত রুজিফার ফুফাতো ভাই বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছে।
এদিকে ,এলাকাবাসী আরো জানান, রুজিফা আত্মহত্যা করেনি তাকে হত্যা করা হয়েছে। এনিয়ে চলছে নানা সমালোচনা ও আলোচনার ঝড়।
পুলিশ বলছেন, লাশ সুরাত হালের প্রাথমিক রিপোর্ট তৈরী করে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

Comments are closed.