রৌমারীতে ধর্ষিতা শিশুর বাড়িতে সমাজসেবা কর্মকর্তা

14

শফিকুল ইসলাম, ব্যুরো অফিস,রৌমারী (কুড়িগ্রাম)
কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ধর্ষিতা শিশুর বাড়ি পরিদর্শন করলেন উপজেলা সমাজসেবা
কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম। এসময় আরোও উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা কার্যালয়ের
ফিল্ড সুপার ভাইজার আব্দুল্লাহেল কাফি, ইউনিয়ন সুপার ভাইজার সাজেদুল করিম প্রমূখ।
গত সোমবার সকালের দিকে এ পরিদর্শন করা হয়।
উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম জানান, ধর্ষিতার বাড়ি পরিদর্শন করা
হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পরিবারের সাথে কথা হয়েছে। ওই পরিবারটিকে সমাজসেবা
অধিদপ্তর থেকে আইনি ও আর্থিক সহযোগিতা করা হবে।
প্রসঙ্গত, ৩ বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করায় ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে রৌমারী থানা
পুলিশ। ধর্ষিত ওই শিশুটিকে কুড়িগ্রাম মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে। শুক্রবার
বিকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাওয়াইর গ্রামে এঘটনা ঘটে।
অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাওয়াইর গ্রামের মৃত কোরবান
আলীর ছেলে হোসেন আলী একই গ্রামের স্বপন মিয়ার ৩ বছরের শিশু কন্যাকে ফুসলিয়ে
তার নিজের শোয়ার ঘরে নিয়ে ধর্ষনকালে শিশুটির আত্মচিৎকারে তার মা দৌঁড়ে এসে
রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। এসময় ধর্ষক দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে শিশুটিকে উদ্ধার
করে রৌমারী হাসপাতালে ভর্তি করে।
রৌমারী হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক নূপুর বিশ্বাস জানান, শিশুটিকে ধর্ষনের
প্রাথমিক আলামত পাওয়া গেছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম হাসপাতালে
রের্ফাড করা হয়েছে।
এবিষয়ে রৌমারী থানার তদন্ত (ওসি) মোন্তাছের বিল্লাহ কথা হলে তিনি জানান,
তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে ধর্ষকের লোকজন। রাত ১০টার দিকে
থানায় অভিযোগ করে। অভিযোগ পাওয়ার পর রাতেই অভিযান পরিচালনা করে ধর্ষককে
গ্রেফতার করা হয়েছে।
এব্যাপারে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মোহাম্মাদ দিলওয়ার হাসান ইনাম
জানান, অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নারী শিশু নির্যাতন আইনে
মামলা করে কুড়িগ্রাম জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Comments are closed.