জামালপুর-শেরপুরের বিড়ি ব্যবসায়ী ইদ্রিস মিয়ার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

37

রোকনুজ্জামান সবুজ, জামালপুরঃ জামালপুর-শেরপুরের বিড়ি ব্যবসায়ী ইদ্রিস মিয়ার বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকার সরকারি রাজস্ব ফাঁকি এবং নারী কর্মচারীসহ ৯ জন কর্মচারীকে হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে।

জামালপুর-শেরপুরের রশিদা বিড়ি ব্যবসায়ী ইদ্রিস এন্ড কোং প্রাইভেট লিমিটেড এর কয়েকজন কর্মচারী আজ জামালপুর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন, বিড়ি ব্যবসায়ী ইদ্রিস মিয়ার কোম্পানীতৈ তারা ১৫ বছর থেকে ২৮ বছর চাকুরি করেন। চাকুরির শেষ সময়ে এসে তাদের কাছ থেকে জামানতের কথা বলে সাদা স্ট্যাম্প ও সাদা চেকে সাক্ষর নিয়ে পরবর্তীতে চাকুরিচ্যুত করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে চেক ডিজঅনার মামলাসহ একাধিক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছেন। বিড়ি কোম্পানীর কর্মচারীদৈর দিয়ে শেরপুরের কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা কামারুজ্জামানের নির্বাচন করানোসহ জোরপূর্বক নানা অনৈতিক কাজ করানো হত। এছাড়াও অনৈতিক সম্পর্কের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় রশিদা বিড়ি ফ্যাক্টরীর একজন নারী কর্মচারীকে আটক রেখে শারিরিক নির্যাতনেরও অভিযোগ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে হয়রানীর শিকার কয়েকজন কর্মচারী অভিযোগ করে আরো বলেন, রশিদা বিড়ির ৬টি ফ্যাক্টরিতে উৎপাদিত বিড়ির প্যাকেটে পুরাতন ও নকল ব্যান্ডরোল ব্যবহার করে প্রতিমাসে অন্তত ৩ কোটি টাকার সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে আসছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ইদ্রিস এন্ড কোং প্রাইভেট লিমিটেড এর সাবেক ডিএমডি আব্দুল কাদের, সাবেক ডিজিএম মোস্তাফিজুর রহমান, সাবেক ক্যাশিয়ার সুফিয়া পারভীন ও সাবেক অডিটর আরফান আলী।

 

Comments are closed.