হাত-পা বেঁধে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

9

ডেস্ক নিউজ:
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী (১২) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার পাগলা থানাধীন মশাখালী ইউনিয়নের দড়ি চাইরবাড়িয়া গ্রামে এঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় সোমবার রাতে মেয়েটির মা পাগলা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

স্থানীয় ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার দড়ি চাইরবাড়িয়া গ্রামের দরিদ্র পরিবারের মেয়ে ও স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ঘরে একা পেয়ে তার হাত-পা-মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় একই গ্রামের আবু বকর সিদ্দিক ওরফে আবু মিয়ার বখাটে ছেলে দিলু(২৫)।

খোঁজ পেয়ে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করেন। পরে বিষয়টি এলাকাবাসী পাগলা থানা পুলিশকে অবহিত করলে গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরী ও পাগলা থানার ওসি শাহিনুজ্জামান খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী বলেন, ওরা কর্মজীবী দরিদ্র মানুষ। সন্ধ্যায় বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে ঘটনাটি ঘটেছে।

গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরী বলেন, লিখিত অভিযোগটি এফআইআরভুক্ত করে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য পাগলা থানার ওসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পাগলা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিনুজ্জামান খান বলেন, লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আসামি ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে। মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

Comments are closed.