জামালপুরে ধানের ন্যায্য মূল্যের দাবিতে স্মারকলিপি

13

জামালপুর ঃ সারাদেশে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনে ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা ও মধ্যস্বত্বভোগী সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য বন্ধ করার দাবিতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেছে ভাসানী অনুসারী পরিষদ। বৃহস্পতিবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) রাজীব কুমার সরকারের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

ভাসানী অনুসারী পরিষদ জেলা শাখার উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খায়রুল ইসলাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি আইনজীবী রবিউল আলম বাবলু, সহ-সভাপতি হাফিজুল ইসলাম সজল, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ হাবিবুর রশিদ বাবু, সহ-সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী দিলরুবা আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক বিপুল মিয়া ও মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আইনজীবী রোকসানা বেগম উপস্থিত ছিলেন। ভাসানী অনুসারী পরিষদের স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, সারাদেশে উৎপাদিত ধানের মূল্য উৎপাদন খরচের চেয়ে কয়েক গুণ কম হওয়ায় কৃষকদের মাঝে হাহাকার বিরাজ করছে।

ধানের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় দেশের বিভিন্ন স্থানে কৃষকরা পাকা ধান ক্ষেতে আগুন দিচ্ছে। পাকা ধানে মই দিচ্ছে এবং সড়কে ধান ছিটিয়ে প্রতিবাদ করছে। উৎপাদন খরচ বেশি হওয়ায় ধানের ন্যায্য মূল্য প্রতিমণ ১ হাজার ২শ টাকা হওয়া প্রয়োজন। অথচ সরকার প্রতি মণ ধানের মূল্য ১ হাজার ৪০ টাকা নির্ধারণ করে দিলেও মধ্যস্বত্বভোগী সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য কৃষকরা চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তারা ধানেরমূল্য পাচ্ছে প্রতি মণ ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। নেতৃবৃন্দ কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান ক্রয় করে এবং ধানের বাজার মূল্য নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে কৃষকদের বাঁচানোর দাবি জানান।

Comments are closed.