হকাররা অবৈধ আমার বিদ‌্যুত ব‌্যবসা বৈধ- আলআমিন

15

নিজস্ব প্রতিনিধি:
নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র ১নং রেল গেইট হইতে আনন্দ হোটেল পর্যন্ত ফুটপাত থেকে যুবদল কর্মী আল আমিন বিদ‌্যুত বিলবাবদ প্রতিদিন চাঁদা তুলেন। তবে আল আমিনের দাবি, বৈধ বৈদ্যুতিক লাইন দিয়ে তিনি এই চাঁদা তুলে আসছেন। এবিষয়ে জানতে, আল আমিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি বৈধভাবে হকারদের কাছ থেকে বিদ‌্যুত বিলবাবদ হকার প্রতি ২৫ টাকা করে নেই। ফুটপাতে হকারবসা অবৈধ ও হকারদের বিদ‌্যুত দেয়াও অবৈধ কিনা জানতে চাইলে আল আমিন জানায়, হকাররা অবৈধ, আমার বিদ‌্যুত ব‌্যবসা বৈধ।

ভুক্তভোগী হকাররা জানান, দীর্ঘ অনেক দিন যাবৎ নিয়মিত, চাঁদা উত্তোলন করতো আলআমিন। হকারদের নানাভাবে নির্যাতন চালাতো। এক পর্যায় হকাররা তার নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে তাকে চাঁদা দেয়া বন্ধ করে দেয়।

হকাররা সম্মিলিত ভাবে বিদ্যুৎ অফিসে আবেদন করে একটি মিটার বসায় । যার দায়িত্ব পালন করেন শাহজাহান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আলামিন হকারদের মারধর ও ভয়ভীতি দেখিয়ে নির্যাতন শুরু করে। এক পর্যায়ে পত্রিকায় তাঁর দেয়া ভুল তথ্য দিয়ে তার হারানো সাম্রাজ্যে পুনরুদ্ধারের জন্যে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাদের নাম জড়িয়ে তাঁদের বিকৃতি করে নিজেদের স্বার্থ আখের গুছানোর জন্যে ষড়যন্ত্র করেন।

তখনই সে হকারদের নেয়া লাইন কেটে আলামিন তাঁর অবৈধ বিদ্যুৎ লাইন সংযোগ দিয়ে পুনরায় চাঁদাবাজি শুরু করেন।

তবে হকাররা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, বিএনপি ক্ষমতায় নাই, সেই এত ক্ষমতা আর সন্ত্রাসী কিভাবে করে, এর পিছনে কারা আছেন সেই বিষয়ে প্রশাসনের কাছে সুবিচার আশা করি। আমরা গরীব মানুয লাত্তী উষ্ঠা খেয়ে দু মুঠো ভাতের জন্যে রাস্তা ঘাটে ব্যবসা করি । দশ লাখ রোহিঙ্গা যদি প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ে বেঁচে থাকতে পারে, আমরা বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে কেনো কাজ কর্ম করে বেঁচে থাকতে পারবো না।

হকারদের অভিযোগ, আলামিন কে চাঁদা না দেয়ায় সে ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতাদের নাম দিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় নিউজ করিয়ে হকারদের উচ্ছেদ করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। এবিষয়ে আলআমিন বলেন, আমি নিউজ করিয়েছি। কয়েকজন অবৈধভাবে আমার ব‌্যবসা নষ্ট কর‌ে দিচ্ছে তাই।

এ সব বিষয়ে যুবদল নেতা আলামিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি ১ নম্বর গেইট হতে আনন্দ কাউন্টার পর্যন্ত বিদ্যুতদিয়ে হকারদের কাছ থেকে পঁচিশ টাকা করে চাঁদা তুলছি দীর্ঘ সতের আঠারো বছর ধরে। তিনি আরো জানান , আমি ডিপিডিসি থেকে বৈধভাবে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করি ।এই ব্যবসা দীর্ঘ সতের আঠারো যাবৎ করে আছি। আমি বিদ্যুতের ব্যবসা করি।

Comments are closed.