বাইকার্স এসোসিয়েশন সড়ক নিরাপত্তা আইন দাবীতে অবস্থান কর্মসূচী

12

 স্টাফ রিপোর্টার:বাংলাদেশ বাইকার্স এসোসিয়েশন আয়োজনে আমার সড়ক আমার নিরাপত্তা এই শ্লোগানে নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবীতে অবস্থান কর্মসূচী গ্রহণ করে। শনিবার ( ৯ নভেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সামনে এই অবস্থান কর্মসূচী অনুষ্ঠাননে তাদের ১১ টি দাবী তুলে ধরেন। বাংলাদেশ বাইকার্স এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় সভাপতি জীবন নজরুল তিনি বলেন, দুর ঘটনার জন্য বিভিন্ন বিষয় জড়িত শুধু যে চালক কখনিই দাই না। অনেক কিছু সম্পৃক্ত আমার সেই সকল বিষয় কে আমরা সামনে আনতে চাই এর বাস্তবায়িত করা যায় যা অনেক অংশে লাগোব হবে বলে মনে করি।

সেই সকল দাবী থেকে আমাদের নিরাপত্তা আমাদের ব্যাক্তিগত নিরাপত্তা আমাদের সামাজিক নিরাপত্তা। সেই সকল দাবী নিয়ে আজ আমরা রাস্তায় নেমেছি। আমরা মনে করি পরিবহন আইন কিছু সংশোধন করতে হবে। যা আজকে আমরা আমাদের দাবী তুলে ধরছি। নতুন ট্রাফিক আইনের অসংগতি সংশোধনের দাবী,সকল স্প্রিড ব্রেকার রঙিন করতে হবে এবং উচ্চতা ও প্রস্থ সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে।

প্রতিটি শপিং মল বা বড় রেস্টুরেন্টের নিজস্ব পাকিং থাকতে হবে। ,সিটি কর্পোরেশন নিজ উদ্যোগে শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পার্কিং জোন নির্মান করতে হবে। সড়কে গাড়ির গতির সর্বোচ্চ সীমা নিধারণ করতে হবে। এবং ইঞ্জিনের গতি সীমাবদ্ধ করতে দিতে হবে। যত্রতত্র যাত্রী উঠা নামার জন্য নিদৃষ্ট পার্কিং পয়েন্ট রাখতে হবে। সড়কে থেকে হাট বাজার সরাতে হবে। অনিবন্ধিত গাড়ি চলাচল বন্ধ করতে হবে। হেড লাইটের আলো ডিমার বাধ্যতামূলক শহর এবং শহররতলীতে সড়ক ডিভাইডারে উচ্চতা বাড়াতে হবে পেশাদার ডাইভারাদের ট্রেনিং এর ক্ষেত্রে নূন্নতম ১ বছর শিক্ষানবিশকাল থাকতে হবে। এ সময় অবস্থান কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ বাইর্কাস এসোসিয়েশন কেন্দ্রয়ী সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল সরকার, দপ্তর সম্পাদক সাইফুল উদ্দিন মানিক, কোষাধ্যক্ষ সম্পাদক কামরুল ইসলাম শাকিল, প্রচার সম্পাদক ফিরোজ আহাম্মেদ বাপ্পি, বাংলাদেশ বাইর্কাস এসোসিয়েশন জেলা সভাপতি গোলাম রাব্বানি, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল হক মাসুদ প্রমুখ

Comments are closed.