বন্দরে ইজিবাইকের ধাক্কায় সিএনজি চালক নিহত

2

বন্দর প্রতিনিধি:
বন্দরে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা অটো ইজিবাইকের ধাক্কায় নজরুল ইসলাম ওরফে নজু (৫০) নামে এক সিএনজি চালক নিহত হয়েছে। শুক্রবার রাতে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ^াস ত্যাগ করেন তিনি। নিহত সিএনজি চালক নজরুল ইসলাম নজু বন্দর থানার দড়ি-সোনাকান্দাস্থ শহর আলী মিয়া বাড়ি ভাড়াটিয়া ও উক্ত এলাকার মৃত তমিজ উদ্দিন মিয়ার ছেলে।

প্রত্যেক্ষদৃশিরা জানিয়েছে, শুক্রবার সকাল ৭টায় সিএনজি চালক নজু মিয়া প্রয়োজনীয় কাজের জন্য বাসা থেকে বের হয়ে দড়ি-সোনাকান্দা মোড়ে আসে। ওই সময় কল্যান্দী এলাকার ঘাতক অটোচালক শাহাজাদা বেপরোয়া গতিতে সিএনজি চালক নজুকে ধাক্কা দিলে সে সাথে সাথে মাটিতে লুটে পরে। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী মুমুর্ষ অবস্থায় নজুকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দিন রাত সাড়ে ১০টায় শেষ নিঃশ^াস ত্যাগ করেন। এলাকাবাসী সূত্রে জানায়, এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা শনিবার সকাল ৬টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত বন্দর টু কলাগাছিয়া রুট ও মদনগঞ্জ রুটে সিএনজি, অটো ইজিবাইক চলাচল বন্ধ করে দেয়। এতে কর্মজিবীসহ সাধারন জনগনের চলাচলের চরম র্দূভোগের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় স্থানীয় কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ ও বন্দর সিএনজি ও অটো ইজিবাইক শ্রমিক সমিতির সভাপতি খান মাসুদ দুপুরে সমস্যা সমধানের জন্য সমযতার বৈঠক বসে। বৈঠকে ঘাতক অটো চালক শাহাজাদাকে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা ক্ষতিপুরন ও বন্দর সিএনজি ও অটোচালক সমিতি থেকে ৫৬ হাজার টাকা ক্ষতি পূরনের আশ^াস দেন। বৈঠকের পর নিহত নজরুল ইসলামের নামাজের জানাযা বাদ যোহর দড়ি-সোনাকান্দা বাইতুল সালাত জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত পর সোনাকান্দা কবরস্থানে দাফন সর্ম্পন করা হয়। সমাধানের পর দুপুর ২টায় উল্লেখিত রুটে যানচলাচল পুনরায় শুরু হয়। এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ রফিকুল ইসলাম জানায়, সড়ক র্দূঘটনার সংবাদ পেয়ে সাথে সাথে সেখানে পুলিশ পাঠিয়েছি। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি।

Comments are closed.